পাঁচটি বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়েও ভর্তি অনিশ্চিত নাটোরের ফাতেমা’র!

পাঁচটি বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়েও ভর্তি অনিশ্চিত নাটোরের ফাতেমা’র!

অর্থের কাছে হেরে যেতে বসেছে ফাতেমা’র উচ্চশিক্ষা। কোথায় পাবেন অর্থ, কে দিবেন অর্থ? শেষ পর্যন্ত কি অর্থের কাছে হেরে যাবেন। এমন আশ’ঙ্কায় দিন কাটছে নাটোরের লালপুর উপজে’লার তিলকপুর গ্রামের চা বিক্রেতা ইউসুফ আলীর আদম্য মেধাবী কন্যা ফাতেমা খাতুনের।

kantarpollinews
kantarpollinews
kantarpollinews
kantarpollinews

ইউসুফ আলী জানান, ৩ শতাংশ বাড়ির জমিটি ছাড়া আর কিছুই নেই। মেয়ে একাধিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ পেলেও ভর্তি করানোর ও পড়ানোর টাকা নেই বলে জানান তিনি। ফাতেমা’র বড় বোন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান বিভাগের ৪র্থ বর্ষে অধ্যায়নরত। তার একার পক্ষে দুই বোনের লেখা পড়া করানো সম্ভব না।

kantarpollinews
kantarpollinews
kantarpollinews
kantarpollinews

জানা গেছে, ছোটবেলা থেকেই দুর্দান্ত মেধাবী ফাতেমা। পিএসসিতে জিপিএ-৫, জেএসসিতে জিপিএ-৫, এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেলেও পরীক্ষার সময় অ’সুস্থ থাকায় এইচএসসিতে পান জিপিএ-৪.৯২। ফাতেমা এবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় ‘ক’ ইউনিটে মেধা তালিকায় ৭৪৭তম, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় ‘খ ইউনিটে মেধা তালিকায় ৩৩৪, ইস’লামী বিশ্ববিদ্যালয়ে খ ইউনিটে ১৮৩, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে খ ইউনিটে মেধা তালিকায় ১৪তম, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ গ’ ইউনিটে ৪৯৫তম।

kantarpollinews
kantarpollinews
kantarpollinews
kantarpollinews

ভর্তি হতে প্রায় ১৫ হাজার টাকা লাগবে তিনি জেনেছেন। কিন্তু ভর্তির টাকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের খরচ জোগানো তার পক্ষে অসম্ভব হয়ে পড়েছে। তাই তিনি তাকিয়ে আছেন সমাজের বিবেকবানদের দিকে। একটু সহানুভূতিই তাকে উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন সফল করে দিতে পারে। আগামী সপ্তাহে তার ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু হবে। কিন্তু তার এই স্বপ্ন পূরণে বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে অর্থ।

kantarpollinews
kantarpollinews
kantarpollinews
kantarpollinews

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির সুযোগ পেয়েও অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে তার উচ্চশিক্ষা। উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করে ফাতেমা বিসিএস ক্যাডার হতে চায়। আগামী ১০ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির শেষ দিন। কিন্তু জীবনের শুরুতেই বড় বাঁ’ধা হয়ে দাঁড়িয়েছে অর্থ। কোথায় পাবে টাকা, কে দিবেন টাকা? কে চালাবে পড়ার খরচ! এই চিন্তায় দিন কাটছে অদম্য মেধাবী ফাতেমা’র। দিনমজুর বাবার পক্ষে এ টাকা জোগাড় করা ক’ষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে।

মেয়ের উচ্চশিক্ষার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন ইউসুফ আলী।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 kantarpollinews
Design BY NewsTheme